বিনামূল্যে অতিরিক্ত হাত পা ঘামের চিকিৎসা সেবা ক্যাম্পেইন

 

as-500x227
হাত ও পায়ের অতিরিক্ত ঘামের (Hyperhidrosis) চিকিৎসার জন্য ১৯৬০ এর দশকে বৈজ্ঞানিক গবেষণার মাধ্যমে Iontophoresis নামে একটি সফল চিকিৎসা পদ্ধতি পৃথিবীতে চালু হয়েছে। প্রাথমিকভাবে দৈনিক একটি হাত করে দুই হাতে ২০ মিনিট করে ১০ থেকে ১৫ দিন চিকিৎসা নিলে ঘাম স্বাভাবিক হয়ে যায়। পবর্তীতে প্রতি দুই থেকে তিন মাস অন্তর দুই থেকে তিন দিন চিকিৎসা নিলে ঘাম স্বাভাবিক থাকে। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বিজ্ঞানীদের ডিজাইনে ANTI-SWEAT যন্ত্রটি IONTOPHORESIS পদ্ধতিতে নিরাময় দেয়। গত ১৫ বছর ধরে শত শত রোগীরা ঘরে বসেই নিয়মিত এ যন্ত্র ব্যবহার করে ভাল থাকছেন।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বায়োমেডিক্যাল ফিজিক্স এবং টেকনোলজি বিভাগের উদ্যোগে যাদের অতিরিক্ত হাত-পা ঘামের সমস্যা রয়েছে তাদেরকে ফেব্রুয়ারি ও মার্চ মাসে বিন্যামূল্যে প্রথম পর্বের চিকিৎসা সেবা দেওয়া হবে। যেকোনো ব্যক্তির জন্য এই বিনামূল্যের সেবা প্রযোজ্য হবে।

নিয়মাবলী:

১. শুরুতে আপনাকে ফোনে বা ডিপার্টমেন্টে এসে রেজিস্ট্রেশন করতে হবে।
২. রেজিস্ট্রেশন করার সময় আপনি কবে থেকে চিকিৎসা শুরু করবেন তা আমাদের জানাতে হবে। প্রতিটি কার্যদিবসে সকাল এগারোটা থেকে বিকাল পাঁচটা পর্যন্ত চিকিৎসা সেবা দেওয়া হবে কার্জন হলের ১৫ নাম্বার রুমে অবস্থিত বিভাগের সামনের বারান্দায়।
৩. মনে রাখা প্রয়োজন প্রথম পর্বের চিকিৎসা থেকে ফলাফল পেতে আপনাকে কমপক্ষে দশদিন আধাঘন্টা করে চিকিৎসা নিতে হবে। ক্যাম্পেইন চলাকালীন সময়ে প্রতিদিনই আপনি ফ্রিতে সেবা নিতে পারবেন।
৪. এছাড়াও আপনি আগ্রহী হলে নির্ধারিত বিক্রয়মূল্যে যন্ত্রটি ক্রয় করে বাসায় ব্যবহার করতে পারবেন।

একনজরে জরুরী তথ্য:

স্থান : রুম: ১৫, বায়োমেডিকেল ফিজিক্স এন্ড টেকনোলজী বিভাগ, কার্জন হল, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় (গুগল ম্যাপ লিংক)
তারিখ: ১ফেব্রুয়ারি’২০১৫ থেকে ২৮ ফেব্রুয়ারি’২০১৫

যে কোন অনুসন্ধানে যোগাযোগ করুন:

আব্দুল্লাহ মাহবুব – 01677 437809
রায়হান আবীর – 01843 769501
জিহাদ তরফদার – 01717 295204
সজীব – 01843 590069